Tag Archives: মিশা সওদাগর

জীবনের ঝুঁকি নিয়ে আমিই শাকিবকে বাঁচিয়েছিলাম : মিশা সওদাগর

বিনোদন ডেস্কঃ ‘নির্বাচনের রাতে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে আমিই শাকিব খানকে বাঁচাই। বরং মৌসুমী, সানী, অমিত হাসানরা এগিয়ে আসেনি।’ বক্তব্যটি দেশের অন্যতম খল অভিনেতা ও বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতি মিশা সওদাগরের। গেল বছর ৬ মে রাতে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনের ভোট গণনা কক্ষে হঠাৎ করেই শাকিব খান হাজির হন। এ নিয়ে মিশা-জায়েদ প্যানেলের লোকজন আপত্তি জানায়। এক পর্যায়ে শাকিবকে মিশা-জায়েদ প্যানেলের নেতা কর্মীরা বের করে দিতে চান। শেষে ধাওয়া ও পাল্টা ধাওয়ার ঘটনাও ঘটে! আর এমন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার পর অভিযোগের আঙুল ওঠে মিশা সওদাগরের দিকে। অসংখ্য সফল চলচ্চিত্রে একসঙ্গে অভিনয় করা দুই অভিনেতার মধ্যে ঘটে সম্পর্কের অবনতি। মূলত সেই বিষয়েই একুশে টেলিভিশনের জনপ্রিয় অনুষ্ঠান ‘বিহাইন্ড দ্য স্টোরি’-এ কথাগুলো বলেন মিশা সওদাগর। শাকিব খান বিষয়ে সেই রাতের ঘটনা ছাড়াও টিভি এ অনুষ্ঠানে মিশা খোলামেলা কথা বলেন অপু-শাকিবের ডিভোর্স প্রক্রিয়া, সিনেমার বিভাজনসহ বেশ কিছু প্রসঙ্গে। শাকিবের সঙ্গে আর কোনও সিনেমায় দেখা যাবে কি না- উপস্থাপক সৈকত সালাহউদ্দিনের এমন প্রশ্নের জবাবে মিশা সওদাগর বলেন, ‘গত ১০ বছর আমি ও শাকিব খান যৌথভাবে ইন্ডাস্ট্রিকে এগিয়ে নিয়েছি- এটাই সত্য। তাই তার সঙ্গে আমাকে আর ছবিতে দেখা যাবে না- এই ধারণা ঠিক না।’ ‘বিহাইন্ড দ্য স্টোরি’ অনুষ্ঠানের এবারের পর্বের বিষয় ‘মন্দ লোকের ভেতর বাহির’। অনুষ্ঠানটি প্রচার হবে শুক্রবার (১৯ জানুয়ারি) রাত ৯টা ৩০ মিনিটে একুশে টেলিভিশনে। সৈকত সালাহউদ্দিনের গ্রন্থনা ও উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানটি প্রযোজনা করেছেন এনামূল হক।

অভিনয় থেকে অবসরের ঘোষণা দিলেন মিশা

নায়ক-নায়িকার চেয়ে কোনো অংশেই কম জনপ্রিয় নন মিশা। এখনো দর্শকরা তার অভিনয় উপভোগ করছেন। নতুনভাবেই আবিষ্কার করছেন নিজেকে। এখন তিনি সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিক নেয়া খলঅভিনেতা। আর ক্যারিয়ারের এমন ভালো সময়েই কিনা বিদায় নিতে চান মিশা সওদাগর। ঢালিউডের গুণী এই বলেন, সাড়ে ৮০০ থেকে ৯০০ সিনেমায় অভিনয় করেছি। দর্শকদের প্রচুর ভালোবাসা পেয়েছি। আল্লাহতালার রহমতে ও আপনাদের ভালোবাসায় আমাকে নিয়ে সংবাদের কোনো কমতি নেই। অনেক তো হলো এবার অবসর নিতে চাই। তবে কেন বিদায়ের কথা আসছে। জবাবে মিশা বলেন, দর্শকরা আমাকে ভালোবাসেন এটাই সবচে’ বড় অর্জন। আমার মনে হয় এরকম অবস্থায় বিদায় নিতে ভালোবাসাটা সাড়া জীবন রয়েই যাবে। মিশা সওদাগর চলচ্চিত্রে অভিনয় শুরু করেন ১৯৮৬ সালে। এফডিসি আয়োজিত নতুন মুখ কার্যক্রমে নির্বাচিত হন তিনি। ছটকু আহমেদ পরিচালিত ‘চেতনা’ ছবিতে নায়ক হিসেবে অভিনয় করেন ১৯৯০ সালে। ১৯৯৪ সালে ‘যাচ্ছে ভালোবাসা’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে প্রথম খলনায়ক হিসেবে পর্দায় উপস্থিত হন মিশা। দীর্ঘ ২৭ বছরের অভিনয় জীবনে খল চরিত্রে নিজেকে কিংবদন্তি হিসেবেই তুলে ধরেছেন তিনি। সুত্রঃ http://www.breakingnews.com.bd/bangla/entertainment/33890.online